Qt নিয়ে আমি এর আগেও একটি টিউন করেছিলাম এবং সেই টিউনে অনেকেই অভিযোগ করেছেন যে, আমার দেয়া সল্যুশনে তাদের মোবাইলে এখনো Qt সমস্যার সমাধান করতে পারেননি। এটি অবশ্যই দুঃখের বিষয়। যাহোক। অনেকেই এরকম অভিযোগ জানানোর পর আমি Qt নিয়ে অনেক ঘাটাঘাটি করেছি কিন্তু বেশিরভাগই কাজে লাগাতে পারিনি। এর প্রধান কারণ আমি আমার ফোনে CFW ব্যবহার করছিলাম।

যারা Qt নিয়ে আমার আগের টিউনটি মিস করেছেন অথবা যারা এখনো জানেননা Qt খায় না মাথায় দেয় তারা এখানে ক্লিক করুন

আজকে আমি Qt সমস্যার সমাধানটি ৩টি ভাগে ভাগ করেছিঃ

১। নরমাল ফোন ব্যবহারকারীদের জন্য (যারা তাদের ফোন হ্যাক করেননি) ২। হ্যাকড ফোন ব্যবহারকারীদের জন্য ৩। CFW ব্যবহারকারীদের জন্য

১। নরমাল ফোন ব্যবহারকারীদের জন্য (যারা তাদের ফোন হ্যাক করেননি)

যারা এখনো তাদের ফোন হ্যাক করেননি বা সার্টিফিকেট দিয়ে সাইন করে এখনো সফটওয়্যারগুলি ইন্সটল করছেন তাদের জন্য Qt কোন সমস্যা নয়। অর্থাৎ আপনার ফোন যদি আনহ্যাকড হয় তাহলে-

(ক) প্রথমে নিশ্চিত হউন আপনার ফোনের ইন্টারনেট কানেকশনের 15MB ডাটা ব্যালেন্স আছে কিনা। না থাকলে নতুন প্যাকেজ নিন।

(খ) OVI/NOKIA ষ্টোর এ যান অথবা নেট থেকে যেকোন একটি Qt বেসড সফটওয়্যার ডাউনলোড করুন

(গ) NOKIA ষ্টোর থেকে এমন একটি এপ্লিকেশন খুজে বের করুন (যেমনঃ Talking Cat, Anti-Mosquito) যেগুলি ডাউনলোডের সময় “This item may require a one-time download of components as large as 13MB. Use of Wi-Fi is recommended.” ম্যাসেজ দেখায়। অথবা নেট থেকে ডাউনলোডকৃত Qt বেসড সফটওয়্যারটি ইনস্টল করুন।

(ঘ) সফটওয়্যারটি ডাউনলোড/ইনস্টল করুন। ইনস্টল হওয়ার একসময় ৮ MB এর মত কিছু কমপোনেন্ট ডাউনলোড করতে চাইবে। OK/YES করুন।

(ঙ) ডাউনলোড শেষে কমপোনেন্টগুলি ইনস্টল শুরু হবে এবং NOKIA ষ্টোর / নেট থেকে ডাউনলোডকৃত এপ্লিকেশনটিও ইন্সটল হবে।

(চ) Applications ফোল্ডার থেকে ইন্সটলকৃত এপসটি এখন আপনি চালু করতে পারবেন।

(ছ) ব্যাস ! এখন থেকে আপনি অন্য যেকোন Qt বেসড সফটওয়্যার ইনস্টল করতে পারবেন তবে পরবর্তীতে আর ৮ MB র মত ডাটা ডাউনলোড হবে না।

২। হ্যাকড ফোন ব্যবহারকারীদের জন্য

ক্রাকড বা আনসাইনড সফট ব্যবহার করার জন্য হ্যাক করতেই হবে। তাই ৮০% লোকই তাদের ফোন হ্যাক করেন। কিন্তু আসল সমস্যা Qt নিয়ে। কারণ হ্যাক করা ফোনে Qt ইন্সটল হয় না। তাই Qt বেসড অনেক ভাল ভাল এপ্লিকেশনগুলি ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে হয়। হ্যাকড ফোনে Qt ইন্সটল করার ফলপ্রসু কোন সমাধান পাওয়া যায় নি। তাই হ্যাকড ফোনে Qt ইনস্টল করার জন্য একটু ঝামেলা পোহাতে হবে। আপনার জন্য করনীয়-

(ক) প্রথমে আপনার ফোনকে হার্ড রিসেটের মাধ্যমে রিষ্টোর করে নিন অর্থাৎ আনহ্যাকড করে নিন। হার্ড রিসেট করার জন্য ফোনে *#7370# চেপে পরবর্তী নির্দেশনা অনুসরণ করুন।

(খ) ফোনটি সফলভাবে রিস্টোর হয়ে গেলে- ১ নং আনহ্যাকড ফোনের পদ্ধতির (ক) থেকে (ঙ) পর্যন্ত অনুসরণ করুন।

(গ) এখন আপনার ফোনে যেকোন Qt বেসড এপ্লিকেশন ইন্সটল হবে কিন্তু ক্রাক করা বা আনসাইনড এপ্লিকেশন ইন্সট্ল করা যাবেনা।

(ঘ) পূণরায় আপনার ফোনটি হ্যাক করুন।

(ঙ) এখন আপনি আপনার ফোনে যেকোন Qt বেসড ইনস্টল করার পাশাপাশি ক্রাক কিংবা আনসাইনড এপ্লিকেশনও ইন্সটল করতে পারবেন

৩। CFW ব্যবহারকারীদের জন্য

আমি আগেই বলেছি যারা একবার তাদের ফোনে CFW ব্যবহার করেছেন তারা পরবর্তীতে আর OFW তে ফিরে যাননি। আমিও এই দলে আছি। অন্য সবকিছুতে ঠিক থাকলেও CFW ব্যবহারকারীদের প্রধান সমস্যা Qt নিয়ে। তাই CFW ব্যবহারকারীদেরকে Qt এপ্লিকেশন ব্যবহার করার জন্য হয় OFW তে ফিরে যেতে হয় নাহলে অন্য CFW (যেগুলি Qt সমস্যা ফিক্স করেছে) ব্যবহার করতে হয়। তবে বেশিরভাগ CFW ই Qt সমস্যা ফিক্স করে না ফলে বিপাকে পড়তে হয় সাধারণ ব্যবহাকারীদের। যাহোক CFW ব্যবহারকারীদেরকে এক্ষেত্রে আমার একটা পরামর্শ আপনারা বর্তমান অর্থাৎ যেটাতে Qt সমস্যা করে সেটি পরিবর্তন করুন। এক্ষেত্রে আপনারা Photon ফার্মওয়্যারটি ব্যবহার করতে পারেন। এটি খুবই ভাল একটি ফার্মওয়্যার এবং এর সদ্য রিলিজ হওয়া বর্তমান ভার্সনটিতে Qt কোন প্রকার সমস্যা করে না। Photon এর সবচেয়ে লেটেস্ট ভার্সন পেতে নিচের টিউনটি দেখুন

ডাউনলোড করে নিন অসাধারণ The Fastest Firmware “Photon C6-06″