টরেন্ট কি? টরেন্ট দিয়ে কি হয়? টরেন্ট খায় না মাখে? নাকি পিন্দে? এইরকম হাজারো প্রশ্নের উত্তর নিয়ে টেকটিউনসে টরেন্ট নিয়ে বেশ কয়েকটি ভাল ভাল টিউন হয়েছে। তাই এখন আপনারা হয়ত সবাই জানেন টরেন্ট কি জিনিস। আর যদি এখনো কারো কারো জানা না থাকে যে টরেন্ট আবার কি জিনিস? তাহলে আমাদের এক্সক্লুসিভ টিউনার “হিমায়িত দিহান” ভাইয়ার টিউনটি দেখতে পারেন। উনি টরেন্ট নিয়ে একটি বিস্তারিত টিউন করেছেন যেটি পড়লে টরেন্ট নিয়ে আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর পাবেন।

টিউনটি এখনেঃ

টরেন্ট ডাউনলোড নিয়ে সকল সমস্যার সমাধান [আপডেটেড মেগাটিউন]

আশা করি এখন টরেন্টকে নিয়ে আপনার বেশ ভাল ধারণা হয়ে গেছে।

এখন আসি মূল কথায়। টরেন্ট ডাউনলোড করতে মূলত টরেন্ট ডাউনলোডারগুলোকেই ব্যবহার করতে হয়। যেমনঃ µTorrent । কিন্তু টরেন্ট ডাউনলোড করার ক্ষেত্রে যে বিষয়টা মাথায় রাখতে হয়, তা হল টরেন্টটিতে যেন সিডার বেশি থাকে। নাহলে ডাউনলোডে বেশি স্পীড পাওয়া যায় না 🙁 । আর তাছাড়া আমি কেন জানি টরেন্ট দিয়ে ডাউনলোড করতে স্বাচ্ছন্দ বোধ করিনা। কেমন কেমন যেন লাগে। তাই মনে মনে আপসোস হয় যে, ইসস ! টরেন্টগুলা যদি Internet Download Manager (IDM) দিয়ে ডাউনলোড করা যেত তাহলে অনেক সময় বাচত। খুজতে খুজতে পেয়ে গেলাম সলুশন 🙂 । আজ সেটি নিয়েই আমার এই টিউন।

কিভাবে IDM দিয়ে টরেন্ট ডাউনলোড করবেন?

প্রথমে আপনি যে টরেন্টটি ডাউনলোড করতে চান সেটির লিংকটি কপি করুন।

ধরুন আপনি জাস্টিন বিবারের হাই কোয়ালিটির ভিডিও গানগুলি ডাউনলোড করবেন সেক্ষেত্রে আপনি টরেন্টস সার্চ ইঞ্জিনগুলিতে যান। যেমন আমি http://thepiratebay.org/ এ গেলাম। এবং আমার চাহিদা অনুযায়ী টরেন্স সার্চ দিলাম।

সার্চ রেজাল্ট থেকে আপনার পছন্দমত যেকোন একটি সার্চ রেজাল্টে ক্লিক করুন

এরপর টরেন্ট এর ডাউনলোড লিংকটি কপি করুন

এবার http://torrific.com/signup/ লিংকটিতে গিয়ে আপনার ইমেল এড্রেস ও আপনার পছন্দমত একটি পাসওয়ার্ড দিয়ে Sign Up এ ক্লিক করুন। ব্যাস আর কিছু করতে হবে না। এমনকি আপনাকে ইমেল এড্রেস ভেরিফিকেশনও করতে হবে না। অটোমটিক রেজিষ্ট্রেশন হয়ে যাবে।

এবার http://torrific.com/ লিংকটিতে গিয়ে আপনার কপিকরা টরেন্ট এর ডাউনলোড লিংকটির এড্রেস পেষ্ট করুন। তারপর Get এ ক্লিক করুন।

এবার আপনার টরেন্ট এ কি কি আছে তার নাড়িভূড়ি সব বের হয়ে যাবে। এখন ” initiate bittorrent transmission ” বাটনটিতে ক্লিক করুন।

এখন আপনার টরেন্টটি যদি ঠিকঠাক থাকে তাহলে আপনাকে লিষ্ট দেখাবে এবং বলবে ” your torrent is available ” 🙂 । এখন আপনার ডান সাইডে লিষ্ট থেকে আপনার যেইটাতে ক্লিক করবেন সেটাই ডাউনলোড হওয়া শুরু করবে। আর সবগুলি যদি একসাথে ডাউনলোড করতে চান তাহলে Download checked files as .zip তে ক্লিক করুন। ভয় পাবেন না। কারণ ডাউনলোড লিংকগুলি রিজিউম সাপোর্টেট এবং ফুল স্পীডের 😉 ।

ইন কেস যদি আপনার টরেন্টটি ওদের কাছে না থাকে তাহলে আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে। বেশিক্ষণ লাগবে না ১ থেকে দেড় ঘণ্টাতেই হবে। বেশিও লাগতে পারে।

সহজভাবে বুঝাতে চেষ্টা করেছি তবুও বুঝতে সমস্যা হলে নিচের ভিডিওটিতে চোখ বুলাতে পারেন-

এখন মনে সুখে ডাউনলোড করুন। আমিও ডাউনলোড করতেছি 😀

==============================

আমার আগের করা টিউনগুলি দেখতে চাইলে উপরে “আমার টিউনার পাতা” তে ক্লিক করতে পারেন।

আর আমার নতুন নতুন সব লেখা গুলি মিস না করতে আমাকে সাবস্ক্রাইব করতে পারেন। এর জন্য উপরে “আমার টিউন আর,এস,এস -এ ক্লিক করুন। আমার টিউন পৌছে যাবে আপনার ই-মেইল-এ।

==============================